১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | মঙ্গলবার, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

হিরো আলম ও সেফুদাকে ক্ষমা করে দিলাম: অনন্ত জলিল

প্রকাশিতঃ জুলাই ১৯, ২০২০, ৬:৩৩ অপরাহ্ণ



হিরো আলম ও সেফুদাকে ক্ষমা করে দিলাম: অনন্ত জলিল। ছবি সংগৃহীত

বিনোদন ডেস্ক:
হিরো আলম ও সেফুদা নামে পরিচিতি পওয়া বিতর্কিত সেফাতুল্লাহকে ক্ষমা করে দেয়ার কথা জানিয়েছেন চলচ্চিত্র অভিনেতা অনন্ত জলিল।

রবিবার নিজের ফেসবুক পেজ থেকে এক ভিডিও বার্তায় এ কথা জানান ঢালিউড অভিনেতা ও ব্যবসায়ী।

ওই ভিডিও বার্তায় অনন্ত জলিল বলেন, ‘আমি কেন হিরো আলমকে ছবি থেকে বাদ দিলাম। আপনার দেখেছেন, আমি হিরো আলম ও জায়েদ খানের সঙ্গে মিটমাট করে দিই। তাদেরকে সোনারগাঁতে নিয়ে লাঞ্চ করাই। তারা আমাকে কমিটমেন্ট করে, এই বিষয়ে আর কথা বলবে না।’

হিরো আলমকে উদ্দেশ্য করে মোস্ট ওয়েলকাম খ্যাতি এই অভিনেতা বলেন, ‘তুমি কী বুঝো ইউজ কাকে বলে? তোমার পাশে যদি কোনো এডুকেটেড পারসন থাকত তাহলে তোমাকে অক্ষরে অক্ষরে বুঝিয়ে দিতে পারত ইউজ করা কাকে বলে। কেউ যদি দিনের পর দিন ব্যক্তি স্বার্থে কাজে লাগিয়ে ছুড়ে ফেলে দেয় তাকে ইউজ বলে। যদিও হিরো আলমকে আমার কোনো কাজেই লাগবে না।’

এর আগে হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিলেও নিজের সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন অনন্ত।

গত বৃহস্পতিবার বিকালে ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টে হিরো আলমকে তার সিনেমা থেকে বাদ দেয়ার কথা জানান তিনি।

ফেসবুকের ওই পোস্টে তিনি বলেন, ‘আমি হিরো আলমকে নিয়ে কোনো সিনেমা বানাবো না এবং পঞ্চাশ হাজার টাকা সাইনিং মানি ফেরত নেব না! সিংহভাগ বিনোদন সাংবাদিকরা এবং চলচ্চিত্র পরিবারের সকল গুণীজনরা হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা না বানানোর জন্য আপত্তি জানাচ্ছেন এবং রিসেন্টলি তার কিছু অশ্লীল ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সকলেই আমাকে নিষেধ করছেন, তাকে নিয়ে সিনেমা না বানানোর।’

‘সব সময় আমি বিব্রত হচ্ছি, হিরো আলমের এসব বিতর্কিত বিষয়গুলোর জন্য। দীর্ঘদিন ধরে আমি চলচ্চিত্র অঙ্গনে সম্মানের সহিত কাজ করে আসছি, চলচ্চিত্রের প্রতিটি সংগঠনের সাথে ভালো সম্পর্ক আছে। প্রতিটি সংগঠনই আমাকে সন্মানের চোখে দেখে। তাই এই সম্মান রক্ষার্থে, বিতর্কিত কাউকে নিয়ে আমি সিনেমা বানাতে চাই না,’ যোগ করেন অনন্ত।

কোনো চলচ্চিত্র সংগঠন হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা বানাতে চাইছে না দাবি করে তিনি বলেন, ‘চলচ্চিত্র সংগঠনগুলোর সম্মানার্থে আমিও চাই না বিতর্কিত কাউকে নিয়ে সিনেমা বানাতে।’

অনন্ত আক্ষেপ করে বলেন, ‘আরেকটি কারণ উল্লেখ না করলেই নয়। কিছুদিন আগে আমি নিজ উদ্যোগে জায়েদ খানের সাথে হিরো আলমকে মিল করিয়ে দিয়েছিলাম এবং প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে তাদেরকে নিয়ে একসঙ্গে লাঞ্চ করেছিলাম। মীমাংসা করে দেয়ার পরেও একই বিষয় নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় হিরো আলম মন্তব্য করছেন যা মোটেও কাম্য নয়।’

‘আমার এত ব্যস্ততার মাঝেও আমি তাকে পাশে বসিয়েছিলাম, সে আমার মর্যাদা বোঝে নাই। আমার মর্যাদা যেহেতু বোঝে নাই তাই আমি চাই না ভবিষ্যতে তার দ্বারা আমার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হোক। আমি চাচ্ছিলাম, তার পাশে দাঁড়িয়ে তাকে সহযোগিতা করার, যাতে করে তার উপকার হয়। এ ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের মানুষের সাথে আমার কাজ করা সম্ভব না। তার এই চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের কারণে আমি আর তাকে নিয়ে সিনেমা বানাবো না, পঞ্চাশ হাজার টাকা সাইনিং মানি যেটি দিয়েছি সেটি আমি চাইছি না, সেটি তাকে আমি দিয়ে দিলাম,’ বলেন অনন্ত জলিল।

তিনি বলেন, ‘মিট করার পরও হিরো আলম এই বিষয়ে একটি ভিডিও বার্তা দেয়। ভিডিওর ক্যাপশনে সে লিখে, অনন্ত জলিল আমাকে ইউজ করেছে।’ ইউএনবি

Leave a Reply