২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | বুধবার, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

সুশান্তের মৃত্যুতে সিবিআই তদন্তের সুপারিশ বিহার সরকারের

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৪, ২০২০, ৩:৫৭ অপরাহ্ণ




বিনোদন ডেস্ক
সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর কিনারায় সিবিআই তদন্তের সুপারিশ করল বিহার সরকার। মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানিয়েছেন, ‘মঙ্গলবার সকালে রাজ্য পুলিশের ডিজি সুশান্তের বাবা কেকে সিংয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন। সিবিআই তদন্তের জন্য তিনি সম্মতি দিয়েছেন। তাই আমরাও সরকারের তরফে সিবিআই তদন্তের সুপারিশ করলাম।’

ইতিমধ্যেই সুশান্ত মৃত্যু মামলায় ক্রিয়েটিভ কনটেন্ট ম্যানেজার সিদ্ধার্থ পিঠানীর বক্তব্য রেকর্ড করেছে বিহার পুলিশ। এক পুলিশ অফিসারকে উদ্ধৃত করে এই খবর জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই। এছাড়াও অভিনেতার ম্যানেজার দীপেশ সাওয়ান্তসহ মোট ১০ জনের বক্তব্য রেকর্ড করা হয়েছে। আগেই সুশান্ত রাজপুতের বোন, প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখাণ্ডে, পরিচালক রুমি জাফরি, পাচক বন্ধু ও চিকিৎসকের বয়ান রেক্রড করা হয়েছিল।

বিহার পুলিশের একটি দল সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামলার তদন্তে এই মুহূর্তে দিল্লিতে রয়েছে। এর আগে মৃত অভিনেতার বাবা কেকে সিং ছেলের মৃত্যুর জন্য পাটনা পুলিশের কাছে রিয়া চক্রবর্তীসহ মোট ছয় জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই মুম্বইতে গিয়েছে বিহার পুলিশ।

তবে, এই মামলার তদন্তে মুম্বই ও বিহার পুলিশের বিরোধ প্রকট হয়েছে। সোমবার বিহার পুলিশের ডিজি অভিযোগ করে জানান যে, রোববার পাটনার পাটনা (সেন্ট্রাল) এর এসপি বিনয় তিওয়ারি মুম্বই পৌঁছানোর পর তাকে জোর করে কোয়ারেন্টিন করেছে বৃহন্মুম্বই পৌরসভা। যদিও এ সম্পর্কে মুখ খুলতে রাজি হননি মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং। বৃহন্মুম্বই পৌরসভা যেথেতু কোয়ান্টিন করেছে তাই তার কিছু মন্তব্য করা উচিত হবে না বলে জানিয়েছেন কমিশনার। তার দাবি, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তে বিহার পুলিশকে সহযোগিতা না করার কোনও প্রশ্নই নেই। সিপি জানান, সঠিক পথেই তদন্ত চালাচ্ছে মুম্বই পুলিশ। পেশাদার শত্রুতা, টাকাপয়সা, স্বাস্থ্য়-সব দিক থেকেই তদন্ত প্রক্রিয়া চালানো হচ্ছে।

গত ১৪ জুন মুম্বইয়ের বান্দ্রার ফ্ল্যাটে উদ্ধার হয় সুশান্তের ঝুলন্ত দেহ। তার পর থেকেই সিবিআই তদন্তের দাবি জোরালো হচ্ছিল বিহারে। অবশেষ নীতীশ সরকার সিবিআই তদন্তের সুপারিশ করল। সূত্র: ইন্ডিয়ান টাইমস

Leave a Reply