১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | মঙ্গলবার, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

সাতকানিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন স্থাপনের উদ্যোগ ডা. মোরশেদ আলীর

প্রকাশিতঃ জুন ১৯, ২০২০, ৬:০৪ অপরাহ্ণ | শেষ আপডেটঃ জুন ১৯, ২০২০, ৬:৩৫ অপরাহ্ণ



চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
সাতকানিয়া পুরানগড়ের কৃতি সন্তান করোনাযোদ্ধা চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. মোরশেদ আলী করোনা রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এবার তার নিজ উপজেলা সাতকিানিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন স্থাপনেরে উদ্যোগে নিজেই নেমে পড়লেন।

তিনি তার নিজ ফেইজবুক বার্তায় বলেন, আগপিছ না ভেবে বড় একটি কাজে নেমে পড়লাম। কারন কাউকে না কাউকে করতেই হবে। না হয় পকেটে টাকা থাকলে ও মৃত্যুপথযাত্রী রোগীরা অক্সিজেন টুকু ও পাবে না। ডাঙ্গায় থাকা মাছের মতো ছটপট করবে। সাতকানিয়ার জন্য সেদিন বেশি দূরে নয়। এখানেই অন্যদের চেয়ে আমি আলাদা। আমি প্রস্তুত থাকতে চাই। যুদ্ধের মাঝখানে থেকে যুদ্ধের প্রস্তুতির কথা শুধু বোকারাই ভাবতে পারে। তাই সাতকানিয়া কে অন্য উপজেলা থেকে এগিয়ে রাখতে চাই প্রস্তুতির ক্ষেত্রে। তারই ধারাবাহিকতায় সাতকানিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন স্থাপনের উদ্যোগে নিজেই নেমে পড়লাম, সাথে আপনাদের দোয়া তো আছেই।

তিনি জানান,জানি এটা বড় বাজেটের কাজ তবু মনে আশা আছে পারব, কারন আপনাদের মন যে আরো বড়। আমি চাই কেউ আক্রান্ত হলে সাতকানিয়াতেই চিকিৎসা হোক। সেন্ট্রাল অক্সিজেন ছাড়া এটা অসম্ভব।

তবে এটা আবারও বলে রাখি prevention is better than cure. আমি চাই না আপনাদের অসচেতনতার কারনে একজন লোক ও আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আসুক। তবে এও চাইনা হাসপাতালে এসেও অক্সিজেনের অভাবে চট্টগ্রাম শহরে রেফার হউক কিংবা পথিমধ্যে জীবনের সাঙ্গ হোক। তাই আমার এই উদ্যোগ।আশা করি সবার সহযোগিতা পাবো।

তিনি আরও জানান শুধু অক্সিজেন নয় হাই ফ্লো ন্যাসাল ক্যানুলা, স্যাম্পল কালেকশন বুথ, নিরাপত্তা সামগ্রীর ব্যবস্হা ও আমার প্রচেষ্টার অংশ হয়ে থাকবে।

আশা করি কেউ আপত্তিকর মন্তব্য করবেন না। সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে এই মহামারী পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য। আমরা চাই না করো প্রিয়জন অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুবরন করুক।

উল্লেখ্য ডা. মোরশেদ আলী এর আগে নিজ এলাকা সাতকানিয়া পুরানগড় বাসীর জন্য সুরক্ষা সামগ্রী এবং করোনাভাইরাস মহামারীতে অসহায় মানুষের জন্য নিরবে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন।

Leave a Reply