২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | বৃহস্পতিবার, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

মুক্তিযুদ্ধে সিআর দত্তের ভূমিকা জাতি চিরদিন স্মরণ করবে : হানিফ

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১, ২০২০, ৩:১৬ অপরাহ্ণ



মাহবুব উল আলম হানিফ। ছবি সংগৃহীত

পঁচাওর রিপোর্ট:
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ‘জাতির পিতার যে স্বপ্ন অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ, সেই চেতনা বাস্তবায়নে মুক্তিযোদ্ধা সিআর দত্তের অনন্য ভূমিকা জাতি চিরদিন স্মরণ করবে।’

মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দিরে সিআর দত্তের প্রতি আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধকালীন ৪নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) চিত্ত রঞ্জন দত্ত (সি.আর দত্ত) বীর উত্তম গত মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, সিআর দত্ত শুধু মুক্তিযোদ্ধাই ছিলেন না, তিনি ছিলেন একজন ভালো সংগঠক। দেশের যেকোনো ক্রান্তিকালে তিনি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা দিয়েছেন, দায়িত্বপালন করেছেন। রণাঙ্গনে তার সাহসী ভূমিকা জাতি চিরদিন স্মরণ করবে।

শ্রদ্ধা নিবেদনের সময়ে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও আ খ ম জাহাঙ্গীর, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ৪ নম্বর সেক্টরের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) সিআর দত্তকে (বীর উত্তম) ঢাকেশ্বরী মন্দির প্রঙ্গনে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

সকাল ১০টার দিকে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দিরে ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুলিশের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। পরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ, ঢাকার জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম।

এছাড়াও একে একে সিআর দত্তের লাশে শ্রদ্ধা নিবেদন করে বিএনপি, মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, বাংলাদেশ মহিলা ঐক্য পরিষদ, ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির, বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখা, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম, বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোট, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, লালবাগ পূজা থানা কমিটিসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। সূত্র : বাসস

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর