২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | বুধবার, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: ট্রাম্প-বাইডেন শেষ টেলিভিশন বিতর্ক অনুষ্ঠিত

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৩, ২০২০, ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ



মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: ট্রাম্প-বাইডেন শেষ টেলিভিশন বিতর্ক অনুষ্ঠিত। ছবি সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দুই প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেন তাদের সর্বশেষ টেলিভিশন বিতর্কে করোনাভাইরাস’সহ অন্যান্য বিষয়ে পরস্পরকে আক্রমণ করে বক্তব্য রেখেছেন। তবে এবার এক প্রার্থীর কথা বলার সময় প্রতিপক্ষের মাইক্রোফোন বন্ধ রাখার কারণে প্রথম বিতর্কের চেয়ে অনেক বেশি ‘সভ্য’ আচরণ করেছেন দুই প্রার্থী।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টেনেসি অঙ্গরাজ্যের নাশভিলের বেলমন্ট ইউনিভার্সিটিতে চূড়ান্ত এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। এতে জো বাইডেন বলেন, আমেরিকার দুই লাখ মানুষের মৃত্যুর দায়িত্ব যিনি নিতে পারেন না তাঁর দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে থাকার কোনো অধিকার নেই। করোনা মহামারি মোকাবিলায় সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা জানান তিনি।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জানান, তিনি আবার লকডাউনের পক্ষে নন। লকডাউন নয় ভাইরাসকে বন্ধ করতে হবে। করোনাভাইরাসকে নিয়েই মার্কিনরা বাঁচতে শিখেছে বলে দাবি করেন ট্রাম্প।

বিতর্কে জো বাইডেন ট্রাম্পকে বর্ণবাদী হিসেবে অভিযুক্ত করলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করেন, আমেরিকার ইতিহাসে আব্রাহাম লিঙ্কনের পর কৃষ্ণাঙ্গদের জন্য তার মতো এত বেশি কাজ আর কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্ট করেননি।

বিতর্কে আমেরিকার পররাষ্ট্রনীতি নিয়েও আলোচনা হয়। ট্রাম্প বলেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং–উনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক যথেষ্ট ভালো। এ সময় বাইডেন বলেন, তিনি শুধু ছবি তোলার জন্য কিমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বরং কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার পূর্বশর্ত দিয়ে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হবে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প ইউক্রেনে জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেনের পুজি বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিতর্ক তোলার চেষ্টা করলে বাইডেন বলেন, ইউক্রেন নিয়ে যদি কেউ বিপদে পড়ে থাকে সে ট্রাম্প, আমি নই।

জো বাইডেন ওবামা কেয়ারকে শক্তিশালী করে ওষুধের মূল্য কমানো ও জনগণের স্বাস্থ্যসেবা সুলভ করার পরিকল্পনার কথা বলেন। ট্রাম্প জানান, তিনি আইন করে ওবামা কেয়ারের বিতর্কিত বিষয় বাতিল করতে পেরেছেন। ওবামা কেয়ার বাতিল করে আরেকটি ভালো স্বাস্থ্যসেবা আইন চালু করার পরিকল্পনার কথা জানান ট্রাম্প।

আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে এটিই চূড়ান্ত বিতর্ক। এরইমধ্যে চার কোটির বেশি ভোটার আগাম তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। জনমত জরিপে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের চেয়ে জাতীয়ভাবে এবং ব্যাকগ্রাউন্ড রাজ্যের বেশির ভাগ জায়গাতেই পিছিয়ে আছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। সূত্র: পার্সটুডে

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর