২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | মঙ্গলবার, ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

ভূরুঙ্গামারীতে বেড়েই চলেছে করোনা রোগীর সংখ্যা

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১৭, ২০২০, ৪:৩৩ অপরাহ্ণ



ভূরুঙ্গামারীতে বেড়েই চলেছে করোনা রোগীর সংখ্যা।

ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে বেড়েই চলেছে মহামারি করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৬ জন। আর এক মাসের ব্যবধানে উপজেলায় কোভিট-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে তিন গুন। সামাজিক দূরুত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি না মানা, মাস্ক না পড়া এবং অসচেতনতার কারণে করোনা রোগী বাড়ছে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

সবচাইতে বেশি আক্রান্ত হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মীরা। যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গোটা উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিয়ে আসছেন। এখন পর্যন্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেরের ১৩ জন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ৩ জন, ভূরুঙ্গামারী থানার এক পুলিশ সদস্য ও বেসরকারি ব্যাংকের দুটি শাখার কর্মরত ৬ জনসহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ জন।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানাগেছে, এখন পর্যন্ত উপজেলায় করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৩৭২ জনের, ফলাফল এসেছে ৩৫০ জনের, করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি সনাক্ত হয়েছে ৪৮ জনের শরীরে। আর সুস্থ হয়েছে ৩৬ জন।

সর্বশেষ ১৬ জুলাই (রবিবার) রাত সাড়ে নয়টায় একজন নারী সহ পাঁচ ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু সাজ্জাদ মোহাম্মদ সায়েম। গত ১৩ আগস্ট ৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু সাজ্জাদ মোহাম্মদ সায়েম জানান, উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এমতাবস্থায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সার্বক্ষনিক সেবা দিয়ে যাচ্ছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। কোভিট-১৯ শনাক্তের পর চিকিৎসা প্রদান শেষে কোভিড আক্রান্তদের বাড়ি বিধি মোতাবেক লক ডাউন করা হয়েছে। তিনি উপজেলা বাসীকে পরামর্শ দিয়ে বলেন আক্রান্ত হবার ঝুঁকি কমানোর জন্য স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার কোন বিকল্প নেই। সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

Leave a Reply