২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | বৃহস্পতিবার, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

ভারতে গরুর গোশত রাখার সন্দেহে হাতুরিপেটা গো-রক্ষকদের

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১, ২০২০, ৬:০৫ অপরাহ্ণ



 

ভারতে গরুর গোশত রাখার সন্দেহে হাতুরিপেটা গো-রক্ষকদের। ছবি সংগৃহীত

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
গরুর গোশত রাখার সন্দেহে ভারতে আবার নৃশংস নির্যাতন ঘটেছে। নয়ডার পর গো-রক্ষকদের তাণ্ডবে এবার চাঞ্চল্য গুরগাঁওতে। গরুর গোশত পাচারকারী সন্দেহে এক ট্রাকচালককে পুলিশের সামনেই বেদম পেটানো হয়েছে। সেই দৃশ্য রাস্তায় দাঁড়িয়ে দেখলেন অন্য নাগরিকরা। পরে দেখা গেল স্রেফ সন্দেহ। কারণ ওই ট্রাকে করে যাচ্ছিল মোষের গোশত। এনসিআর এলাকার অন্তর্গত গুরগাঁওর এই ঘটনা শুক্রবার সকালের।
শহরের অভিজাত গ্লিস্টেনিং টাওয়ারের ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে এই ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ সূত্রে খবর, আক্রান্ত ট্রাকচালকের নাম লোকমান। যে ট্রাক ঘিরে সন্দেহ, তাকে আট কিমি ধাওয়া করে গ্লিস্টেনিং টাওয়ারের সামনে আটক করে গো-রক্ষকরা। তারপরেই সেই ট্রাক চালককে নামিয়ে হাতুড়ি দিয়ে পেটানো হয়। অভিযোগ, “সেই ট্রাকচালক গরুর গোশত পাচার করছিলেন।”

যদিও পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষার ফর জানা গেছে, সেই গোশত মোষের। এই ঘটনায় অপরিচিত আততায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। প্রদীপ যাদব নামে একজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। ২০১৫ সালে এভাবেই দাদরিতে গরুর গোশত রাখার সন্দেহে আখলাক নামে এক প্রৌঢ়কে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছিল গো-রক্ষকদের বিরুদ্ধে।

পুলিশ সূত্রে খবর, লোককমানকে বাদশাহপুর গ্রামে নিয়ে গিয়ে আরো একপ্রস্থ নিগ্রহ করা হয়েছিল। সেখান থেকে পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করেছে তাকে। স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সেই ট্রাক চালক। অভিযুক্ত ট্রাকের মালিকের অভিযোগ, “ওটা মোষের গোশত। প্রায় পাঁচ দশক ধরে আমাদের পারিবারিক ব্যবসা।”

প্রথম মোদি সরকারের প্রথমদিকে গো-রক্ষকদের তাণ্ডবে হৈচৈ শুরু হয়েছিল ভারতে। বাধ্য হয়ে প্রধানমন্ত্রীকে এই গো-রক্ষকদের ভূমিকার নিন্দা করে বার্তা দিতে হয়েছিল। সূত্র : এনডিটিভি

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর