২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | রবিবার, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

পঞ্চাশ হাজার টাকায় প্রতিবন্ধির সন্তান বিক্রির অভিযোগ!

প্রকাশিতঃ জুন ২১, ২০২০, ৭:৪৫ অপরাহ্ণ



বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) সংবাদদাতা
রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে এক প্রতিবন্ধির তিনদিনের সন্তান বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। রোববার সকালে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের তুলশীবরাট গ্রামে সন্তান বিক্রির এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গেলে শিশুর দাদী জমিরণ বিবি বলেন, তার ছেলে সাহিবুল ও পুত্রবধু দুইজনই বুদ্ধি প্রতিবন্ধি (পাগল)। তারা খাবার দিতে পারে না। তাই দু-সম্পর্কের আত্বীয় সাতক্ষীরায় তাদের সন্তান না থাকায় দেওয়া হয়েছে। তবে কত টাকায় দিলেন এমন প্রশ্নে বলেন, খুশি হয়ে যা দেয়।

সাহিবুলের ভাই খোকনের স্ত্রী আম্বিয়া বেগম বলেন, তার সন্তানাদি না থাকায় ৪ বছর বয়সী সন্তান জুনায়েদকে লালন পালন করছেন। তারা দুইজনই প্রতিবন্ধি হওয়ায় ৩ দিনের শিশু সাতক্ষীরায় জনৈক এক ব্যক্তিকে দিয়েছেন। তবে কত টাকায় দিয়েছেন তার সঠিক কোন কিছু বলতে অস্বীকার করেন। বিষয়টি তার ভাসুর হাবিল শেখ বলতে পারবেন। ইতিপুর্বে তৃতীয় কন্যাকেও নবাবপুর ইউনিয়নের বেরুলী গ্রামে বিক্রি করেছেন বলেও স্বীকার করেন। বড় ছেলে তারাই লালন পালন করছেন।

এলাকার লোকজন বলেন, এর আগেই একটি কন্যা ২০ হাজার টাকায় বেরুলী এলাকায় বিক্রি করেছেন। রোববার সকালেও ৫০ হাজার টাকায় একটি কন্যা সাতক্ষীরা এলাকার জনৈক ব্যক্তির নিকট বিক্রি করেছে। সকালে অটোবাইক যোগে এসে নিয়ে যায়। কোন পরিবার পরিকল্পনাকর্মী এলাকায় যায় না।
তবে সাহিবুল ও তার স্ত্রীর বলেন, খাবার দিতে পারি না তাই দিয়ে দিয়েছি। কত টাকায় বললে বলে, হাবিল শেখ জানে।

জামালপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ বলেন, এর আগেও শুনেছি একটি মেয়ে বিক্রি করেছে। আজও নাকি ৩দিনের শিশু বাচ্চা বিক্রি করেছে। তবে খোঁজখবর নিয়ে উদ্ধারের চেষ্টা চালাবো।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এসএম আল কামাল বলেন, ওই ওয়ার্ডে পরিবার পরিকল্পনাকর্মীর পদ শুন্য রয়েছে। ভিপিকেএ এনজিওকে দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, বাচ্চা বিক্রি সামাজিক অপরাধ। যদি কেউ পালন করার জন্য নিয়ে থাকে সেটা আইনানুযায়ী নেওয়া উচিত ছিল। বিষয়টি আমি এখনই অবগত হলাম। খোঁজখবর নিবো।

Leave a Reply