২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | মঙ্গলবার, ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

দেশে আসতে শুরু করেছে ভারতীয় পেঁয়াজ

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০, ৮:০৩ অপরাহ্ণ



দেশে আসতে শুরু করেছে ভারতীয় পেঁয়াজ। ছবি সংগৃহীত

অর্থনীতি ডেস্ক:
ভারতের রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা আরোপের আগে কেনা পেঁয়াজের চালান শনিবার বিভিন্ন স্থলবন্দর দিয়ে দেশে আসতে শুরু করেছে।

সাতক্ষীরা: ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। আজ ২৫ থেকে ৩০ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হবে। প্রতি ট্রাকে ২২ থেকে ২৫ টন পেঁয়াজ আসছে বলে জানিয়েছেন ভোমরা সিএন্ডএফ নেতারা।

ভারতীয় সিএন্ডএফ সূত্র জানায়, গত ১৪ সেপ্টেম্বর দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ফরেন ট্রেড বিভাগের এক চিঠিতে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ হয়ে যায়। পরে ১৮ সেপ্টেম্বর ফরেন ট্রেডের অপর এক চিঠিতে শর্তসাপেক্ষে শনিবার থেকে পেঁয়াজ রপ্তানির কথা বলা হয়।

এদিকে, রপ্তানি নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে আটকে থাকা প্রায় তিন শতাধিক ট্রাকের পেঁয়াজের অর্ধেকই পচে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন আমদানিকারকরা। তারা বলছেন, এ পেঁয়াজ ভারতের মহারাষ্ট্র থেকে সীমান্তে আসতে সময় নিয়েছে পাঁচ-ছয় দিন। তার ওপর গত পাঁচ দিন ধরে এগুলো ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে আটকে ছিল।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: সোনামসজিদ স্থলবন্দরে আজ বেলা ১১টার দিকে ভারতীয় পেঁয়াজের প্রথম ট্রাক প্রবেশ করে।

সোনামসজিদ স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকরক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাবু বলেন, ‘ভারতের রপ্তানি নিষেধাজ্ঞার আগে টেন্ডার করা অর্থাৎ ১৪ সেপ্টেম্বরের আগে এলসি করা পেঁয়াজ রপ্তানিতে অনুমতি দিয়েছে ভারত। অনুমতির পর বেলা ১১টার দিকে পেঁয়াজের চালান বন্দরে আসতে শুরু করে এবং দুপুর ১টা পর্যন্ত পেঁয়াজ বোঝাই আটটি ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করেছে।’

আটকা পাড়া সব ট্রাক বন্দরে পর্যায়ক্রমে প্রবেশ করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সরকার অভ্যন্তরীণ বাজারে সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এর ফলে সোনামসজিদ স্থলবন্দরের ভারতীয় অংশে পেঁয়াজ বোঝাই দেড় শতাধিক ট্রাক আটকা পড়ে বলে জানান তৌফিকুর রহমান। ইউএনবি

Leave a Reply