৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | সোমবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

ক্যালিফোর্নিয়ায় ২০ লাখ একর বনভূমি পুড়ে ছাই; ভেতরে আটকা বহু মানুষ

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ৮, ২০২০, ৮:৩১ অপরাহ্ণ



ক্যালিফোর্নিয়ায় ২০ লাখ একর বনভূমি পুড়ে ছাই; ভেতরে আটকা বহু মানুষ। ছবি সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে দাবানলে এ পর্যন্ত ২০ লাখ একর বনভূমি পুড়ে গেছে। দ্রুতগতিতে নতুন নতুন স্থানে ছড়িয়ে পড়ছে আগুন। ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেশনো এলাকার কয়েক ডজন মানুষ তাদের ঘরবাড়িতে আটকা পড়েছেন। যেকোনো সময় তাদের ঘরবাড়িতে আগুন লেগে যেতে পারে।

দমকল বাহিনী তাদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে। কিন্তু প্রচণ্ড ধুয়ার কারণে উদ্ধার অভিযান ব্যহত হচ্ছে। সামরিক হেলিকপ্টারগুলো গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছে না।

অঙ্গরাজ্যের বনাঞ্চল এবং অগ্নি নিরাপত্তা দফতরের তথ্য অনুযায়ী,এখন পর্যন্ত এই দাবানলে পুড়ে গেছে ২০ লাখ একরেরও বেশি এলাকার বনভূমি। নতুন করে বিপর্যয় এড়াতে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে স্থানীয় সময় সোমবার রাত থেকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে উপদ্রুত এলাকার এক লাখ ৭২ হাজার মানুষ।

বুধবার সন্ধ্যা নাগাদ ফের পুরোদমে সঞ্চালন ব্যবস্থা চালুর ব্যাপারে আশাবাদী কর্তৃপক্ষ। কর্মকর্তারা বলছেন, মোট ২২টি বড় ধরনের দাবানলের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে এল ডোরাদোতে দাবানলে এক স্থানেই পুড়ে গেছে সাত হাজার একরের বেশি জায়গা। উপদ্রুত এলাকা থেকে লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে উদ্ধারকারীদের।

গত ১৫ আগস্ট থেকে ক্যালিফোর্নিয়ার বিভিন্ন বনাঞ্চলে দাবানল শুরু হয়েছে। তখন থেকে এ পর্যন্ত প্রায় এক হাজারটি দাবানলের কবলে পড়েছে মার্কিন অঙ্গরাজ্যটি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বজ্রপাত থেকে শুরু হয় এসব অগ্নিকাণ্ড।

ক্যালিফোর্নিয়ার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এই বছর দাবানলে কেবল ২০ লাখ একরের বনাঞ্চলই পুড়ে যায়নি, প্রাণ হারিয়েছে আট ব্যক্তি আর ধ্বংস হয়েছে অন্তত তিন হাজার তিনশ’ অবকাঠামো। এর আগে সর্বশেষ ২০১৮ সালে দাবানলে অঙ্গরাজ্যটির ১৯ লাখ ৯৬ হাজার একর বনভূমি পুড়ে যায়। ১৯৮৭ সাল থেকে রেকর্ড রাখা শুরুর পর সেটিই ছিলো সর্বোচ্চ।

এ বছর রেকর্ড পরিমাণ বনাঞ্চল পুড়ে যাওয়ার পরও অন্তত ২৪টি স্থানের দাবানল ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ক্যালিফোর্নিয়ার ১৪ হাজারের বেশি অগ্নি নির্বাপণ কর্মী। সূত্র: পার্সটুডে

Leave a Reply