২৮শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | শনিবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

কুয়েতে ‘প্রবাসী কোটা’ আইনে প্রবাসীদের জন্য বিশেষ সুবিধা

প্রকাশিতঃ জুলাই ২৭, ২০২০, ১০:৫৪ অপরাহ্ণ



কুয়েতে ‘প্রবাসী কোটা’ আইনে প্রবাসীদের জন্য বিশেষ সুবিধা। ছবি সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
কুয়েত সরকার বিদেশী নাগরিকদের দেশে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি প্রদান করে একটি নতুন আইন জারি করেছে। দেশটির সরকার মূলত প্রবাসী ও তাদের নিজস্ব নাগরিকদের মধ্যে কর্মসংস্থান ভারসাম্য রাখতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্যানেল রিপোর্টে বলা হয়েছে, ওই খসড়া আইনের আওতায় গৃহকর্মী, জিসিসির নাগরিক, সরকারি চুক্তিপ্রাপ্ত কর্মী এবং কূটনীতিক ও কুয়েতিদের আত্মীয়সহ সবাইকে প্রবাসী কোটা ব্যবস্থায় ছাড় দেয়া হবে।

স্থানীয় দৈনিক কুয়েত টাইমস জানিয়েছে, আইনটি লক্ষ্য কুয়েতের জনসংখ্যার ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করা। এই আইনে নিয়োগকারীরা তাদের কোটা অনুযায়ী নির্ধারিত সংখ্যা ছাড়িয়ে গেলে বিদেশীদের নিয়োগ দেয়া বন্ধ করে দেবে।

চাকরির অব্যাহতিপ্রাপ্ত কোটার বাইরে নিয়োগপ্রাপ্ত প্রবাসীদের সময়সীমা পার হয়ে গেলে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও তিন লাখ ২৬ হাজার ৮১৯ ডলার বেশি জরিমানার শাস্তি হত। তবে এই নতুন প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ভারতীয় প্রবাসী অবশ্যই জনসংখ্যার ১৫ শতাংশের বেশি হবে না। শ্রীলঙ্কান, ফিলিপিনো ও মিশরীয়রা প্রত্যেকেই দশ শতাংশের বেশি সুযোগ পাবে না। যদিও বাংলাদেশি, পাকিস্তানি, নেপালি ও ভিয়েতনামী প্রত্যকেই পাঁচ শতাংশে সীমাবদ্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে।

একই সাথে অন্য জাতীয়তার নাগরিকরা প্রত্যেকেই তিন শতাংশের বেশি সুযোগ পাবে না। এই খসড়া আইনটি বিবেচনার জন্য কুয়েতের মানবসম্পদ উন্নয়ন কমিটিতে পাঠানো হয়েছে।

কমিটি আশ্বস্ত করেছে, আইন কার্যকর হওয়ার পর অবস্থিত প্রবাসীদের দেশ ছাড়তে হবে না। তবে প্রতিটি শিল্পখাতে লোক সংখ্যা লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়া পর্যন্ত বিদেশ থেকে নতুন লোক নিয়োগ বন্ধ থাকবে।
সূত্র: আরব নিউজ

Leave a Reply