২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | বৃহস্পতিবার, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

করোনায় চট্টগ্রামে ২৪ ঘন্টায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৪৮

প্রকাশিতঃ জুন ১৯, ২০২০, ১২:৩২ অপরাহ্ণ



করোনায় চট্টগ্রামে ২৪ ঘন্টায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৪৮।

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
চট্টগ্রামের দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১৪৮ জন নতুন করে শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৫৯১১ জনে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) চট্টগ্রামের পাঁচটি ল্যাবে সর্বমোট ৭২১টি নমুনা পরীক্ষায় ১৪৮ জনের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৯৪ জন নগরীতে ও ৫৪ জন বিভিন্ন উপজেলার।

শুক্রবার (১৯ জুন) সকালে জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১১২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৪টি পজিটিভ করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর মধ্যে মহানগরে ৯ এবং উপজেলায় ২৫ জন।

এইদিকে ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে ২৭৯টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ২৩টি পজিটিভ। তারমধ্যে মহানগরে ১৩ এবং ১০ জন উপজেলার বাসিন্দা।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে ১১০টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ৬১টি পজিটিভ। তারমধ্যে মহানগরে ৬০ এবং ১ জন উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি (সিভাসু) তে ১২৪টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ৬ জন মহানগরের এবং ১৮ জন উপজেলায় করোনারোগী শনাক্ত হয়।

ইম্পোরিয়াল হাসপাতালে ৯৬টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ৬ জন মহানগরে করোনারোগী শনাক্ত হয়।

সিভিল সার্জন জানান, চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় নতুন শনাক্ত ৫৪ জনের মধ্যে- লোহাগাড়া ৮, সাতকানিয়া ৬, বাঁশখালী ৫, আনোয়ারা ২, ফটিকছড়ি ৯, হাটাজারী ১৪, সীতাকুণ্ড ৪, সন্ধিপ ২ এবং রাউজান ৪ জন।

উল্লেখ্য চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জনের তথ্য মতে বৃহস্পতিবার ১৮ জুন নতুন শনাক্ত ১৪৮ জন রোগীসহ এইপর্যন্ত সর্বমোট ৫৯১১ জন শনাক্ত করা হয়েছে। তারমধ্যে মহানগর এলাকায় ৪০৫৫ জন এবং উপজেলায় ১৮৫৬ জন।

সব মিলিয়ে চট্টগ্রাম উপজেলায় এ পর্যন্ত শনাক্ত হওয়া ১৮৫৬ জনের মধ্যে- সাতকানিয়া ১০৭, সীতাকুণ্ড ২১৭, বোয়ালখালী ১৯৪, পটিয়া ২৩৪, আনোয়ারা ৭০, চন্দনাইশ ১৩২, ফটিকছড়ি ৭২, মিরশ্বরাই ৩৮, হাটহাজারী ৩৪৯, লোহাগাড়া ১০৯, সন্ধীপ ২৭, রাঙ্গুনিয়া ৯৬, বাঁশখালী ৮৯, রাউজান ১২২ জন।

চট্টগ্রামে মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যুবরন করেছে মোট ১৩৬ জন, পাশাপাশি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৭০ জন।

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর