৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | শনিবার, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

এইচএসসিতে ভর্তির প্রথম ধাপের ফলপ্রকাশ হচ্ছে রাতে

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২৫, ২০২০, ৬:১০ অপরাহ্ণ



এইচএসসিতে ভর্তির প্রথম ধাপের ফলপ্রকাশ হচ্ছে রাতে। ছবি সংগৃহীত

পঁচাওর রিপোর্ট:
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে (এইচএসসি) অনলাইনে ভর্তির প্রথম ধাপের ফল আজ মঙ্গলবার রাত ৮টায় প্রকাশ করা হবে। ফল শিক্ষার্থীদের এসএমএসে জানানো হবে। একই সঙ্গে একটি কোড নম্বর পাঠানো হবে। এ কোডটি ভর্তির জন্য সংগ্রহ করতে হবে। আর ভর্তির নির্ধারিত ওয়েব সাইটেও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ফল জানা যাবে।

আন্ত: শিক্ষাবোর্ড সমন্বয় সাব কমিটি এসব তথ্য জানিয়েছে।

করোনা পরিস্থিতিতে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন গত ৯ আগস্ট সকালে শুরু হয়। ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই ভর্তি কার্যক্রম শেষ হবে ।

আন্ত: শিক্ষাবোর্ড সমন্বয় সাব কমিটি জানায়, একাদশ শ্রেণিতে এইচএসসি ও আলিম শিক্ষার্থীদের ভর্তির ১ম দফায় অনলাইনে আবেদন গ্রহণ ৯ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে ২০ আগস্ট শেষ হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে আজ মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) রাত ৮টায়।

শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চয়তা করতে হবে আগামীকাল বুধবার থেকে আগামী রোববার (২৬ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট) রাত ৮টা পর্যন্ত। শিক্ষার্থী সিলেকশন নিশ্চয়ন না করলে প্রথম পর্যায়ের আবেদন বাতিল হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন গ্রহণ ৩১ আগস্ট থেকে চলবে ২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত। পছন্দক্রম অনুসারে ১ম মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশ হবে ৪ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায়। আর দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ হবে একই দিন (৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায়।

দ্বিতীয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চয়ন ৫ থেকে ৬ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত। শিক্ষার্থী সিলেকশন নিশ্চয়ন না করলে ২য় পর্যায়ের সিলেকশন এবং আবেদন বাতিল হবে।

আর তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ চলবে ৭ ও ৮ সেপ্টেম্বর। পছন্দক্রম অনুযায়ী ২য় মাইগ্রেশনের ফল এবং ৩য় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ হবে ১০ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায়।

তৃতীয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীর সিলেকশন নিশ্চয়ন করতে হবে ১১ থেকে ১২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত। সিলেকশন নিশ্চয়ন না করলে আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে আর কলেজভিত্তিক চূড়ান্ত ফল প্রকাশ হবে ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টার দিকে। ভর্তি চলবে ১৩ থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সহায়তায় এবারও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে কলেজ ও মাদ্রাসার ভর্তির কাজটি হচ্ছে।

গত ৩১ মে এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশিত হয়। এতে ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড মিলিয়ে ১৬ লাখ ৯০ হাজার ৫২৩ জন পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৯৮ জন পরীক্ষার্থী। যারা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য অপেক্ষা করছেন। সূত্র:বাসস

Leave a Reply